বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:১০ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে খুনের আসামি ইউসুফ এর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ফেনী প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে ও সাংবাদিক এবিএম নিজাম উদ্দিনের পৃষ্ঠপোষকতায় কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ড: রাধা বিনোদ পাল ও জাপান টাংগাইলে জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উদযাপিত পরিবার কল্যাণ সেবা উদ্বোধান অনুষ্ঠানে এডিসি (সার্বিক) অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ শরিফুল ইসলাম সুবর্ণচরে বন্ধ হয়ে যাওয়া প্রসব সেবা চালু রাখতে সুবর্ণ প্রবাসী ফাউন্ডেশনের চুক্তিপত্র হস্তান্তর অনুষ্ঠান ভাস্কর্য নির্মাণ করে মুসলমানদের অনুভূতির মূলে আঘাত করার অধিকার কারো নেই ভাস্কর্য নির্মাণ ও স্থাপন ইসলাম সম্মত নয় বলে দাবি করেছেন আলেমরা টাঙ্গাইলে ফারুক হত্যা মামলার আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ জোরারগঞ্জে দেড়শ ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার ১
দাগনভুঞা পিতা মাতার বরন পোষণ এর বিচার

দাগনভুঞা পিতা মাতার বরন পোষণ এর বিচার

মশি উদ দৌলা রুবেল ফেনী :

পিতা মাতার ভরণ- পোষণ আইন রয়েছে। কোন সন্তান পিতা মাতার ভরণ- পোষণ না দিলে আইনের আশ্রয় নিন।
ছবির বৃদ্ধ মহিলার বাড়ী দাগনভূঞা পৌরসভায়। তাঁর স্বামী মৃত,
০৪ ছেলে ২ মেয়ে রয়েছে। ভিটি ছাড়া সহায় সম্বল বলে কিছু নেই। তাঁর সন্তানেরা তাঁকে ভরণপোষণ দেন না, তাঁকে দেখার মতো কেউ নেই। এসব কথা বলতে গিয়ে তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন। এমনকি এমন বয়সে শারিরীকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ায় তাঁর হাঁটতেও কষ্ট হচ্ছিল। তাঁর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাঁর সন্তানদের তৎক্ষনাৎ নোটিশ দিয়ে ডেকে আনা হয়, শুনানি নিয়ে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাঁদেরকে জানানো হয় পিতা মাতার ভরণ- পোষণ আইন ২০১৩ অনুযায়ী প্রত্যেক সন্তানকে তার পিতা-মাতার ভরণ-পোষণ নিশ্চিত করতে হবে। কোন সন্তান পিতা-মাতার ভরণ-পোষণ নিশ্চিত না করলে তা অপরাধ বলে গণ্য হবে এবং উক্ত অপরাধের জন্য অনূর্ধ্ব ১ (এক) লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবে; বা উক্ত অর্থদণ্ড অনাদায়ের ক্ষেত্রে অনূর্ধ্ব ৩ (তিন) মাস কারাদণ্ডে দণ্ডিত হবে। এমনকি কোন সন্তানের স্ত্রী, বা ক্ষেত্রমত, স্বামী কিংবা পুত্র-কন্যা বা অন্য কোন নিকট আত্নীয় ব্যক্তি পিতা-মাতার বা দাদা-দাদীর বা নানা-নানীর ভরণ-পোষণ প্রদানে বাধা প্রদান করলে; বা অসহযোগিতা করলে তিনি উক্তরূপ অপরাধ সংঘটনে সহায়তা করেছে গণ্যে উল্লিখিত দণ্ডে দণ্ডিত হবে।উক্ত অপরাধ পিতা বা মাতার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ১ম শ্রেণীর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে বিচারযোগ্য হবে। তাঁর সন্তানেরা তাঁকে দেখবেন এবং ভরণপোষণ দিবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।
আসুন আমরা মানবিক হই। কোন পিতা-মাতার যেন এমন অভিযোগ সন্তানের বিরুদ্ধে আনতে না হয় সেই প্রত্যাশা করি এবং আমাদের দায়িত্ব পালন করি ও আইন মেনে চলি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




যোগাযোগব্যবস্থা : +8801797887885 , +966577834342 Email :voiceofinsaf.office@gmail.com
Desing & Developed BY NewsRush