শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:৪৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি আলমগীর হোসেন শুভ জম্মদিন আজ ইসলামী যুব আন্দোলন (চট্টগ্রাম) বাঁশখালী উপজেলার বাহারছড় ইউনিয়নে দাওয়াতি সভা ও কমিটি গঠন সম্পন্ন মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় টাঙ্গাইল নাগরপুরের একই পরিবারের ৫ জন সহ ৭ জন নিহত যুব আন্দোলন ফটিকছড়ি থানা সম্মেলন সম্পন্ন জাতিকে ধর্মহীন করার লক্ষ্যে প্রণীত শিক্ষানীতি বাস্তবায়ন করতে দেয়া হবে না টাঙ্গাইলে ছাত্র জমিয়তের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে মিরসরাইয়ে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল ‘বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনে সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিবে ছাত্রলীগ’ ঠাকুরগাঁওয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জমি দখল করতে গিয়ে মারপিট, গুরুতর আহত ৩ জন ঠাকুরগাঁওয়ে ইভটিজিং করায় ৬ মাসের কারাদণ্ড লক্ষ্মীপুরে জায়গা জমি নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ ।
ভারতের দৌড়াদৌড়ি শুরু, তিস্তা মহা প্রকল্পের কাজ পাচ্ছে চীন!

ভারতের দৌড়াদৌড়ি শুরু, তিস্তা মহা প্রকল্পের কাজ পাচ্ছে চীন!

ভয়েস অফ ইনসাফ | আবদুল মোতালেব, বিশেষ প্রতিনিধি:

বাংলাদেশের উন্নয়নে চীন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। পদ্মা সেতুসহ দেশের অধিকাংশ মেঘা প্রকল্পের সহায়তায় রয়েছে। বাংলাদেশে চীনের প্রভাব ঠেকাতে নতুন কৌশল নিয়েছে ভারত। বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ঠিক করার লক্ষ্যে ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা এক জুটিকা সফরে ঢাকা এসেছেন বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ভারতের সংবাদ মাধ্যমে ThePrint. সম্প্রতি তিস্তা প্রকল্পে বাংলাদেশকে ১০০ কোটি ডলার অর্থ সহায়তার ঘোষণা দেয় চীন। জানা গেছে বাংলাদেশের তিস্তা নদীর প্রকল্পের কাজ সম্পূর্ণ করার জন্য চীনের সহযোগিতা ছেয়েছিল বাংলাদেশ। তার জবাবে বাংলাদেশকে এই বিরাট অংকের টাকা ধার দিতে চলেছে চীন সরকার।

দীর্ঘ বছর ধরে ভারতের সঙ্গে তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। তিস্তা চুক্তির শর্ত নিয়ে এখনো কোনো ঐক্যর মধ্যে পৌঁছাইনি দুটি দেশ। ভারতীয় গণমাধ্যমের কথা উল্লেখ করে প্রতিবেদনে বলা হয়, মোদি সরকার ব্যর্থ হওয়ায় বাংলাদেশে এখন চীনের সাথে এই নিয়ে চুক্তি করতে যাচ্ছে। তারপরেই এই নদী প্রকল্পের সহযোগিতার জন্য চীনের সাথে বৈঠক করে বাংলাদেশ সরকার। ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে রিপোর্টে প্রকাশিত যে, চলতি বছরের মে মাসে বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী তিস্তা প্রকল্পের জন্য ৮৫৩ মিলিয়ন ডলার অর্থ চেয়েছিল চীনের কাছে। বাংলাদেশের তরফে বলা হয়েছিল তাদের রংপুর জেলা অঞ্চলে অবিলম্বে তিস্তা নদীর অংশের উপর কাজ শুরু করতে হবে।
এছাড়াও রয়েছে নদী খনন সহ আরো নানা নদী সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ সব কাজ, প্রস্তাবে রাজি হয়েছিল চীন। তার ফলাফল হিসেবে বাংলাদেশকে এই বিরাট অংকের টাকা ঋণ দেওয়া। এই প্রথম সরাসরি ভারতের অন্যতম শত্রু দেশ চীন, ভারতের প্রতিবেশী বাংলাদেশের অন্য প্রকল্পে সরাসরি যুক্ত হলো।

বাংলাদেশের ওয়াটার ডেভেলপমেন্ট বোর্ড এর অ্যাডিশনাল চিফ ইঞ্জিনিয়ার জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ এই প্রসঙ্গে জানিয়েছেন যে, চীনের সহায়তা চলতি বছর ডিসেম্বর মাসে তিস্তা প্রকল্পের কাজ শুরু করা যাবে বলেই তাদের বিশ্বাস। তিনি আরো জানান যে বহু বছর ধরেই পানি সমস্যায় জর্জরিত তিস্তা। সঙ্গে তিনি এও জানান আয়তনে তিস্তা নদী কোন কোন জায়গায় এক কিলোমিটার আবার কোথাও বা পাঁচ কিলোমিটার পর্যন্ত চওড়া। তাই তাদের পরিকল্পনা চওড়ায় তিস্তার আয়তন কমিয়ে প্রায় ১০ মিটার পর্যন্ত নদীর গভীরতা বাড়ানো। যার ফলে অনেক বেশি পরিমাণে পানি বহন ও ধরে রাখতে সক্ষম হবে তিস্তা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




যোগাযোগব্যবস্থা : +8801797887885 , +966577834342 Email :voiceofinsaf.office@gmail.com
Desing & Developed BY NewsRush